ছট পুজোর সূর্যের উপাসনায় নারকেল ও গামছা বিলি করলেন মমতার মন্ত্রী

বাঁকুড়া: ছট পুজো লক্ষ্যে শনিবার বাঁকুড়া শহর সংলগ্ন গন্ধেশ্বরী নদীতে ‘সূর্যের উপাসনা’য় অংশ নিলেন এলাকার হিন্দীভাষি মানুষেরা। আর সেখানে পৌঁছে অসহায় ও দুঃস্থদের মধ্যে নারকেল ও গামছা বিলি করলেন রাজ্যের মন্ত্রী শ্যামল সাঁতরা।

মন্ত্রী শ্যামল সাঁতরার এই উপস্থিতি নিয়েই তৈরী হয়েছে রাজনৈতিক চানানতোর। অনেকে মনে করছেন, সামনেই বাঁকুড়া পৌরসভায় ভোট। লোকসভা ভোটের ফলাফলের নিরিখে এই পৌরসভায় ব্যাকফুটে শাসক শিবির। আর তাই ‘ছট পুজো’কে হাতিয়ার করে হিন্দিভাষী মানুষদের মধ্যে জনসংযোগ বৃদ্ধি ও হারানো ভোট ব্যাঙ্ক ফিরে পেতেই এই উদ্যোগ বলে অনেকে মনে করছেন।

কিন্তু মন্ত্রী শ্যামল সাঁতরা এনিয়ে রাজনৈতিক প্রসঙ্গ আনতে নারাজ।
তিনি বলেন, ৩৬৫ দিন ২৪ ঘন্টা আমরা মানুষের সঙ্গে থাকি। পৌরভোটের সঙ্গে এখানে ছট পুজোয় তার উপস্থিতির কোন মিল নেই। নিজের ধর্মীয় বিশ্বাস ও মানুষের পাশে সব দিন যেমন থাকেন সেই টানেই এসেছেন বলে জানান।

এদিন গন্ধেশ্বরী নদীতে ছট পুজোয় অংশ নিয়ে তৃণমূল নেতা ও বাঁকুড়া পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান দিলীপ আগরওয়াল বলেন, পূণ্যার্থীদের সুবিধার জন্য পৌরসভার তরফে ঘাট পরিস্কার করা হয়েছে। পাশাপাশি পর্যাপ্ত আলো ও পুরো এলাকা ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

বিজেপি এই বিষয়টিকে নিয়ে কটাক্ষ করাতে ছাড়ছেনা। দলের জেলা সহ সভাপতি নীলাদ্রি শেখর দানা বলেন, তৃণমূল আগে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যোগ দিতনা। লোকসভা ভোটে এই এলাকায় পরাজয়ের পর তাদের দেরীতে হলেও ঘুম ভেঙ্গেছে। তবে এতো সবের পরেও ২০২০ সালের পৌর নির্বাচনে তৃণমূল নিশ্চিত হারবে বলে তার দাবি। নারকেল-গামছা বিলি করেও শহরের হিন্দীভাষী মানুষের ভোট ব্যাঙ্কে তৃণমূল থাবা বসাতে পারবেনা বলেও তিনি দাবি করেন।

TheLogicalNews

Disclaimer: This story is auto-aggregated by a computer program and has not been created or edited by TheLogicalNews. Publisher: Kolkata 24×7

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *